• সোমবার, ২৯ মে ২০২৩, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করলেন আজমত উল্লা মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে পুণরায় সভাপতি সেলিম, সম্পাদক সুমন ১০ দফা বাস্তবায়নের দাবীতে খাগড়াছড়িতে বিএনপির জনসমাবেশ অনুষ্ঠিত  জেলা পর্যায়ে মেধা প্রতিযোগীতায় সুজানগর গার্লস একাডেমির ছাত্রী মার্জিয়া রহমান নিহার কৃতিত্ব।  আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে নান্দাইলে কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত মাধবপুরের কৃষি মেলা উদ্বোধন:বিমান প্রতিমন্ত্রী  গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জায়েদা খাতুনের বাজিমাত গাজীপুরের নগরপিতা কে হবেন,রায় দেবেন জনগন আজ ৮ বছরের ছেলের আদিল মাহমুদ সোহান এর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার।  উপজেলা বিএনপি সহ-সভাপতিকে ‘বিশ্বাসঘাতক’ আখ্যা দিয়ে দল থেকে বহিষ্কার

দৌলতখানে বিধবা নারীকে ঘর থেকে বের করে তালাবদ্ধ করলেন: ইউপি চেয়ারম্যান।

দৈনিক আমাদের সংগ্রাম | পত্রিকা..... / ১০৫ জন পড়েছে
প্রকাশিত সময়: শুক্রবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

মোঃ শাহীন সোহাগ – দৌলতখান প্রতিনিধিঃ

দৌলতখান উপজেলায় সৈয়দপুর ইউনিয়নে বিধবা নারী কে ঘর থেকে ভয় দেখিয়ে বেরকরে দিয়ে বসত ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখার অভিযোগ উঠেছে সৌয়দপুর ইউপি চেয়ারম্যান জি,এস ভুট্টু তালুকদারের বিরুদ্ধে । সরেজমিনে ও ভুক্তভোগী নারীর সাথে কথা বলে জানাযায়। সৌয়দপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন আঃ হাশিম মৌলভীর ৭ কন্যা সন্তান।

আঃ হাশিম মৌলভী ঐ অঞ্চলের একজন বড় মাপের বুঝুর্গ মানুষ ছিলেন। তার মৃত্যুর পর ক্রয়কৃত ২০ শতাংশ জমি ৭ মেয়ের মধ্যে সমভাবে বন্টন করে দেওয়া হয়। ২০ শতাংশ জমি থেকে কবর স্থানের যায়গা ও বাড়ির সামনে একটি মাদ্রাসার জমি বাদ দিয়ে ২.২৫ করে মেয়েদের জমি দেওয়া হয়।

একই বাড়িতে আঃহাশিম মৌলভীর সাথে তার ছোট মেয়ে বিলকিস জমি ক্রয় করে। বাবার মৃত্যুর পর ঐ জমির উপর নজর পরে বড় মেয়ে হালিমা বেগমের (৪০)। জমি নিজ কব্জায় নিতে এলাকার একটি প্রভাবশালী চক্রকে আয়ত্ব করে বোনদের উপর প্রভাব চালায়।

কোন ভাই না থাকার কারনে পরিবারটি অত্র স্থানে অসহায় হিসেবেই পরিচিত। বহুবার সালিশি বৈঠক হয় কিন্তু দিনের রায় রাতে উল্টে যায়। মওলবীর ছোট মেয়ে বিলকিস (৩৭) বিয়ে হয় নোয়াখালিতে ৩ টি সন্তান তার স্বামী মৃত্যু বরণ করে অনেক আগে। বড় ছেলে ১৪ বছর বয়স কোরাআনে হাফেজ,ছোট দুই বাচ্চা মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে।

বাবার মৃত্যুর আট বছর পর নিজ অংশ বুঝে নিতে দৌলতখানে এসেই বিপত্তি পরতে হয় তাকে । বাবার বাড়িতে বসবাস করা বড় বোন হালিমা বেগম তার জমি আত্মসাৎ করার পায়তারা করে। এক বোন রাশেদা অসহায় বিলকিস কে তার অংশ সহ বসতঘরটি দান করে। তাতেই আপত্তি প্রভাবশালীদের।

০৯-০২-২০২১ তারিখ ঐ চক্রটি বিলকিস কে ঘর থেকে বের করে বসত ঘরে তালাবদ্ধ করে দেয়,পরে বিধবা মহিলাটি কে মারধর করতে তার গায়ের ছুটে আসেন। চেয়ারম্যান দাঁড়িয়ে থেকে ২ জন চৌকিদার ও তসলিম তালুকদার নামক জনৈক ব্যক্তি দিয়ে ঘরের মালামাল বাহিরে ফেলে দেওয়া হয়। অকত্য ভাষায় গালিগালাজ করে বিধবা নারিকে ভয় দেখানো হয়। ভয়ে এক প্রকার পালিয়ে বেড়াচ্ছেন পরবারটি ।

তসলাম তালুদার অসহায় বিলকিস কে জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয় । ঘটনাটি নিয়ে বারাবাড়ি না করার জন্য শাসায় চেয়ারম্যান । ১০ তারিখ ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয় নিন্দার ঝর উঠে, চেয়ারম্যান ও তসলিম তালুকদার এর কে আইনের আওতায় আনতে জোর দাবী উঠার পর ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রভাবিত করার মিশন নিয়ে মাঠে নামে তারা।
ব্যবহার করা হয় প্রাইমারী স্কুল মাষ্টার রুহুল আমিন সহ অনেক কে।

এ ব্যাপারে সৌয়দপুর ইউপি চেয়ারম্যান জি,এস ভুট্টু তালুকদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘর তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে সুষ্ঠ সমাধানের জন্য একাধিক বার সালিসি হয়েছে। উভয় পক্ষ মধ্যে রায় মানা নিয়ে জটিলতা রয়েছে সমাধানের জন্য ঘরটি তালাবদ্ধ করা হয়েছে।

অসহায় পরিবারটি প্রশাসনের সকল সহায়তা কামনা করেছেন। প্রভাবশালী চক্রটির পায়তারা অব্যাহত রয়েছে। ঘটনাটির তদন্ত করে দোষীদের আইনের আওতায় আনা জরুরী বলে মনে করছেন সচেতন মহল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
❌ নিউজ কপি করা নিষিদ্ধ ❌